ফের ব্যাটিং বিপর্যয়, এবারও দায়িত্ব মুশফিক-লিটনের ঘাড়ে

ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে ২৪ রানে ৫ উইকেট পড়ে গেলে দলের হাল ধরেছিলেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাটিং ব্যর্থতা দেখা দেওয়ায় আবারও তাদের ঘাড়েই পড়েছে মান বাঁচানোর দায়িত্ব। শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১০৭ রানে পিছিয়ে থেকে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেছে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ। ফের ব্যাটিং বিপর্যয়, এবারও দায়িত্ব মুশফিক-লিটনের ঘাড়ে শ্রীলঙ্কার ১৪১ রানের লিডের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই টাইগাররা হারায় তামিম ইকবালকে, যিনি ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত উভয় ইনিংসে শূন্য রানে আউট

সাকিবের দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান, এবাদতের ‘আক্ষেপ’ রানআউট

দিনেশ চান্দিমালের পর রমেশ মেন্ডিসকেও ফেরালেন এবাদত হোসেন। মাঝে নিরোশান ডিকভেলার উইকেট নেন সাকিব আল হাসান। তখন তাদের দুজনেরই উইকেট সমান ৪টি। প্রাবিন জয়াবিক্রমকে কট বিহাইন্ড করিয়ে নিজের ফাইফার তুলে নিলেন সাকিব। কিন্তু পারেননি এবাদত। সাকিবের রানআউটে শেষ হলো শ্রীলঙ্কার ইনিংস। জয়াবিক্রমকে আউট করার মাধ্যমে টেস্ট ক্রিকেটে দীর্ঘ ৪৬ মাসের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়েছেন সাকিব। ২০১৮ সালের জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জ্যামাইকার স্যাবাইনা পার্কে ৩৩ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন সাকিব। এরপর মাঝের ৪৬ মাসে আর সাদা

উল্টে পাল্টে গেল টেস্ট র‌্যাঙ্কিং, বিশ্ব রেকর্ড করলেন সাকিব

টেস্টে এ নিয়ে ১৯ বার ইনিংসে ৫ উইকেট নিলেন সাকিব। বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে যা সর্বোচ্চ। ১০ বার ৫ উইকেট নিয়ে দুইয়ে তাইজুল ইসলাম। ৮ বার নিয়ে তিনে মেহেদী হাসান মিরাজ এবং ৭ বার তা করে দেখিয়ে চারে মোহাম্মদ রফিক। অর্থাৎ বাংলাদেশের এ তালিকায় শীর্ষ চারে কোনো পেসার নেই। ৪ বার ৫ উইকেট নেওয়া পেসার শাহাদত হোসেন পাঁচে। টেস্টে সর্বোচ্চসংখ্যক বার ৫ উইকেট নেওয়া বোলারদের তালিকায় সাকিব মাঝামাঝি অবস্থানে। তার চেয়ে বেশিবার ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন

শারীরিক নয় ক্রিকেটারদের মানসিক সমস্যা দেখছেন সাকিব

‘উই ডু কেয়ার অ্যাবাউট টেস্ট ক্রিকেট’ ২০১৮ সালে সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট হারের পর সংবাদ সংম্মেলনে এমনটা বলেছিলেন তৎকালীন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরপর প্রায় পেরিয়েছে চার বছর। অথচ এখনও সাদা পোশাকের ক্রিকেটে নিজেদের গুরুত্বের ছাপ রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। মাঝে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট জিতলেও পরিবর্তন ঘটেনি বাংলাদেশের টেস্ট ব্যর্থতার। সাউথ আফ্রিকা সিরিজের পর ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজে। একের পর এক ব্যাটিং ব্যর্থতা ভোগাচ্ছে টাইগারদের। এমন ব্যর্থতায় বারবারই প্রশ্ন উঠছে ক্রিকেটারদের টেস্ট খেলার মানসিকতা নিয়ে। কদিন আগে

শান্তর রান আউট সাকিবের চোখে ‘ভয়ংকর’ ও ‘খারাপ দিক’

ফরম্যাটটা টেস্ট, যেখানে রান নেওয়ার জন্য তাড়াহুড়া করার পরিস্থিতি আসে না বললেই চলে। তার ওপর প্রতিপক্ষ দল বড় লিড নেওয়ায় চোখ রাঙাচ্ছে হারের শঙ্কা। এমন পরিস্থিতিতে কিনা রান আউট হয়ে নিজের উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এলেন নাজমুল হোসেন শান্ত! শান্ত বেশ কিছু দিন ধরেই ফর্মে নেই। টপ অর্ডারের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনে তার ব্যর্থতায় অনেকেই বলছেন, শান্ত একটি জায়গা ‘দখল’ করে আছেন। এমন পরিস্থিতিতে দৃষ্টিকটু রান আউট আরও প্রশ্নের মুখে ফেলে দিল তাকে। নিজের ভুলে শান্তর আউট

‘আমরা টেস্ট ক্রিকেটের অন্যতম ফিটেস্ট দল’- সাকিবের রসিকতা

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের বেশিরভাগের পাঁচদিনের টেস্ট খেলার মতো ফিটনেস নেই বলে মনে করেন অনেকে। স্বয়ং বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনই তো বলেছিলেন, ক্রিকেটাররা প্রথম চার দিন ভালোই খেলে, তারপর থেকে খেই হারিয়ে ফেলে। বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান কিন্তু এমনটা মনে করেন না। আজ বৃহস্পতিবার ৫ উইকেট নেওয়ার পর তিনি সংবাদ সম্মেলনে এসে রসিকতার ছলে তুলে ধরেন যে, টেস্টে ব্যর্থতার প্রধান কারণ মানসিক সমস্যা। সাকিব বলেন, ‘একজন খেলোয়াড়ের ওপর নির্ভর করে যে সে নিজেকে কোন জায়গায়

শেষ বিকেলে দ্রুত উইকেট হারিয়ে শঙ্কায় বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। ২৩ রান তুলতেই চার উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিকরা। সেখান থেকে দলের হাল ধরেন প্রথম ইনিংসে ইতিহাস রচনা করা মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। তাদের অবিচ্ছিন্ন জুটি ইতিমধ্যে ১১ রান সংগ্রহ করেছে। মুশফিক ১৪ ও লিটন ১ রানে অপরাজিত আছেন। শ্রীলঙ্কার চেয়ে এখনো ১০৭ রানে পিছিয়ে আছে মুমিনুল বাহিনী। ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও শূন্য রানে আউট হন বাংলাদেশ দলের নির্ভরযোগ্য ওপেনার তামিম ইকবাল।

চতুর্থ দিনের শেষ সেশনে ৯ উইকেট; ঢাকা টেস্ট হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ

অফফর্ম থেকে বেরই হতে পারছেন না মুমিনুল হক। একের পর এক ইনিংসে ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছেন। চলতি ঢাকা টেস্টে টাইগার টেস্ট অধিনায়ক প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ৯, এবার আউট হলেন শূন্য রানে। এ নিয়ে টানা সাত ইনিংসে দশের নিচে আউট হলেন মুমিনুল। তিনি ফেরার পর মাহমুদুল হাসান জয়ও বেশিক্ষণ টেকেননি। ২৩ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসেছে বাংলাদেশ। উইকেটে আছেন প্রথম ইনিংসের দুই লড়াকু ব্যাটার মুশফিকুর রহিম আর লিটন দাস। এই যুগলের জুটির দিকেই তাকিয়ে আছে বাংলাদেশ।এখনও

পেসারদের এক যুগের খরা হলেও ভেটোরির আরেকটু কাছে সাকিব

এক প্রান্তে অপেক্ষায় সাকিব আল হাসান, আরেক প্রান্তে ইবাদত হোসেন চৌধুরি। শ্রীলঙ্কাকে অলআউট করার তাড়না ছিল, আর ছিল ব্যক্তিগত প্রাপ্তির হাতছানি। কার আগে হবে ৫ উইকেট! ইবাদতের ৫ উইকেটের অপেক্ষাটা বাংলাদেশ ক্রিকেটেরও। দেশের মাঠে কোনো পেসারের ৫ উইকেট নেই যে এক যুগ ধরে! শেষ পর্যন্ত সাকিব ঠিকই পারলেন, কিন্তু হলো না ইবাদতের ৫। রমেশ মেন্ডিসকে যখন এলবিডব্লিউ করলেন ইবাদত, শ্রীলঙ্কার উইকেট তখন পড়ে গেছে ৮টি। শিকারি স্রেফ দুই জনই, সাকিব ৪, ইবাদত ৪। পরের ওভারেই

সাকিবের পাঁচ উইকেটের স্বাদ কেড়ে নিলেন লঙ্কান বোলাররা

ঢাকা টেস্টের চতুর্থ দিন শ্রীলঙ্কার ইনিংস ৫০৬ রানে গুটিয়ে দিয়ে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিল বাংলাদেশ। চতুর্থ দিনের শুরুতে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ও দীনেশ চান্দিমালের ব্যাটিং দেখে মনেই হচ্ছিল এই টেস্ট নিশ্চিত ড্রয়ের দিকেই যাচ্ছে। কিন্তু শেষ বিকেলে দারুণ বোলিং করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছেন লঙ্কান বোলাররা। চতুর্থ দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৪ রান। মুশফিকুর রহিম ১৪ ও লিটন দাস ১ রান করে অপরাজিত আছেন। ১০৭ রানে পিছিয়ে থেকে খেলতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা ভালো