ভলিবল খেলোয়াড় থেকে যেভাবে ক্রিকেট মাঠে এলেন ইবাদত

মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে দারুণ এক জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এ দুর্দান্ত জয়ের নায়ক পেসার ইবাদত হোসেন। মৌলভীবাজারে ছেলে ইবাদত। তার বাবা চাকরি করতেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি)। একই পথ বেছে নিয়ে আকাশ প্রতিরক্ষায় যোগ দিয়েছিলেন ইবাদত। কাজ শুরু করেন বিমানবাহিনীতে। তবে খেলার মাঠ ইবাদতকে খুব টানে। বিমানবাহিনীর নিয়মিত ভলিবল খেলতেন। কিন্তু তাতে মন ভরে না। মন পড়ে থাকে ক্রিকেট মাঠে। প্রতিপক্ষের ব্যাটারকে ঘায়েল করাই যেন সুখ খুঁজে পান এই প্রতিভাবান। তার কোনো খেলায় বাঁধা দেয়নি বিমানবাহিনী।

হঠাৎ করেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেন দুই লঙ্কান তারকা ক্রিকেটার!

হঠাৎ করেই বিচিত্র এক কাণ্ড ঘটে গেছে লঙ্কান ক্রিকেটে। শ্রীলঙ্কার দুই সুপারস্টার ক্রিকেটার ভানুকা রাজাপাকশে এবং এঞ্জেলো পেরেরা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে (এসএলসি) অবসরের চিঠি পাঠিয়েছেন। শ্রীলঙ্কার গণমাধ্যম স্পোর্টস প্যাভিলিয়ন প্রকাশ করেছে এমনই এক প্রতিবেদন। এই ব্যাপারে এখনো বিস্তারিত কিছু জানায়নি তারা। ২০১৯ সালের অক্টোবরে লাহোরে পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আসেন রাজাপাকশে। এরপর থেকে জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি মিশনে নিয়মিত মুখ ছিলেন তিনি। টপ অর্ডার এই বাঁহাতি ব্যাটার শ্রীলঙ্কার জার্সিতে ১৮টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে করেছেন ৩২০

এবাদত-তাসকিনদের সাফল্যে মিডিয়ার অবদান দেখছেন টাইগার অধিনায়ক

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডকে টেস্টে হারাতে পেস আক্রমণের বিকল্প নেই- এ কথা বুঝতে পেরেছিল বাংলাদেশ দল। যে কারণে প্রথম ম্যাচের একাদশে তিন পেসারের সঙ্গে একমাত্র স্পিনার হিসেবে রাখা হয়েছিল মেহেদি হাসান মিরাজকে। তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও এবাদত হোসেনদের নিয়ে গড়া পেস ডিপার্টমেন্টই বাংলাদেশকে এনে দিয়েছে অবিস্মরণীয় জয়। দুই ইনিংস মিলে সাত উইকেট (১/৭৫ ও ৬/৪৬) নিয়ে ম্যাচসেরাই হয়েছেন এবাদত। এছাড়া তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন তাসকিন ও শরিফুল। বিশেষ করে দ্বিতীয় ইনিংসে পেসাররাই নিয়েছেন ৯টি উইকেট

মুমিনুলও বলছেন ‘এটিই দেশের ক্রিকেটের শ্রেষ্ঠ অর্জন’

প্রায় ২০ বছরের বেশি সময় ধরে নিউজিল্যান্ডে দফায় দফায় সফর করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। বিশেষ করে গত পাঁচ বছরেই এ নিয়ে তৃতীয়বার গিয়েছে টেস্ট সিরিজ খেলতে। কিন্তু তিন ফরম্যাট মিলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের মাটিতে মোট ৩২ ম্যাচ খেলেও কোনো জয় ছিল না বাংলাদেশের। অবশ্য ঘটেছে অপেক্ষার সমাপ্তি। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ২০২২ সালের প্রথম দিন থেকে শুরু হওয়া ম্যাচটিই জিতে নিয়েছে মুমিনুল হকের দল। তাও কি না পুরো পাঁচ দিন ধরে দাপুটে ক্রিকেট খেলেই ৮ উইকেটের জয়

বড় দুঃসংবাদ দিলেন ম্যাক্সওয়েল

মেলবোর্ন স্টারদের ওপর করোনার ছোবল থামেনি। এ তালিকায় এবার নতুন নাম অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। সোমবার মেলবোর্ন রেনেগেডসের বিপক্ষে হারের পর ম্যাক্সওয়েল করোনা পরীক্ষা করান। রিপোর্টে এ অসি তারকার ইতিবাচক ফল। বর্তমানে তিনি আইসোলেশনে রয়েছেন। ম্যাক্সওয়েলের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে মেলবোর্ন স্টারস। ম্যাক্সওয়েলের আগেও মেলবোর্ন স্টারসে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরও ১২ খেলোয়াড় এবং ৮ কর্মী। ম্যাক্সওয়েলের করোনা দলটির জন্য বড় দুঃসংবাদ। অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলের অন্যতম খেলোয়াড়। অস্ট্রেলিয়ান দলের কোনো ব্যাটার হয়ে

যেকারনে এই ঐতিহাসিক জয়ও ভুলে যেতে চান মুমিনুল

টেস্ট চ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ইতিহাস গড়া জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে কিউইদের ৮ উইকেটে হারিয়েছে তারুণ্য নির্ভর টাইগাররা। কিউইদের মাটিতে সব ফরম্যাট মিলিয়ে বাংলাদেশের এটি প্রথম জয়। তবে এমন ঐতিহাসিক জয়ের পরও পা মাটিতে রাখছেন টাইগারদের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। ইতিহাসগড়া জয় উদযাপনের আগেই সবাইকে পরের ম্যাচের জন্য সতর্ক করে দিলেন মুমিনুল। ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ অধিনায়ক বললেন, ‘আজ আমি এই জয় ভুলে যেতে চাই। তাকাতে চাই ক্রাইস্টচার্চের পরের টেস্ট ম্যাচে।’ দলের

ইতিহাস গড়েও মাটিতে পা মুমিনুলের, নজর দ্বিতীয় টেস্টে

টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্বটা পেয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের এক সংকটকালীন মুহূর্তে। হঠাৎ করেই সব ধরনের ক্রিকেট থেকে এক বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা পান তৎকালীন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এরপর দায়িত্ব নিয়েই প্রথম এসাইনমেন্টে ভারত সফরে যান অধিনায়ক মুমিনুল হক। কিন্তু প্রথম পরীক্ষায় ছোট কাঁধে বড় দায়িত্ব সামলাতে ব্যর্থ হয়েছিলেন তিনি। হোয়াইওয়াশের লজ্জাবরণ করতে হয় বাংলাদেশকে। এরপরের গল্পটাও একই রকম হতাশার। গত দুই বছরের বেশি সময়ে অর্জন বলতে কেবল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটি ম্যাচ ড্র ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জয়। তাইতো

সোনালি সাফল্যের দিনে বড় সুখবর দিলেন মুমিনুল

তার নেতৃত্বে অসম্ভবকে সম্ভব করেছে বাংলাদেশ। স্বপ্ন হয়েছে সত্য, অভাবনীয় সাফল্য দিয়েছে ধরা। নিউজিল্যান্ডকে তাদের মাটিতে হারানো যায়- এ অকল্পনীয় সাফল্যকে বাস্তব রুপ দিয়েছে মুমিনুল হকের দল। এ অভাবনীয় সাফল্য উপহার দেওয়ার পাশাপাশি আজ আরও একটি সুখবর দিয়েছেন মুমিনুল। এতো কাল জানা ছিল, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের বড় অংশ বিশেষ করে তরুণরা টেস্ট ক্রিকেট উপভোগ করেন না। তারা টেস্টের চেয়ে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বেশী ভালবাসেন। সীমিত ওভারের ক্রিকেটটাই বেশি উপভোগ করেন। কিন্তু মুমিনুল আজ (বুধবার) জানিয়ে দিলেন,

নির্ঘুম রাতে ঘুম হয়নি অধিনায়ক মুমিনুল হকের

বে ওভালে পঞ্চম দিন কী হবে সেটি ভেবে আগের রাতে ঘুম হয়নি অধিনায়ক মুমিনুল হকের। নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারানোর পর সংবাদ সম্মেলনে এমনটিই জানালেন টাইগার অধিনায়ক। ১২ হাজার কিলোমিটার দূরে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে পাওয়া জয়ে কেটে গেল বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক আঁধার। নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে গেল দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে। ৫ উইকেটে ১৪৭ রান নিয়ে শেষ দিন শুরু করা কিউইদের ইনিংস শেষ হতে এক ঘণ্টাও লাগেনি। ইবাদত-তাসকিন তাণ্ডবে এলোমেলো হয়ে যায় কিউই ব্যাটিং অর্ডার।

ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ের পর মুমিনুলের আবেগঘন বার্তা

ঢাকা : শুধু টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বলেই নয়, বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের আগে ঘরের ম্যাচে টানা ১৭ টেস্ট হারেনি নিউজিল্যান্ড। শেষ ১০ বছরে উপমহাদেশীয় কোন দলই হারাতে পারেনি কিউইদের। আর বাংলাদেশ? ৯ টেস্ট তো বটেই, তিন ফরম্যাট মিলিয়ে ৩২ ম্যাচ খেলে হার সবগুলোতেই। সেই টাইগাররাই কিনা বাজিমাত করল। পরিসংখ্যাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ২ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট জিতেছে ৮ উইকেটে। এতোদিন অধরা জয় ধরা দিল। তাও আবার টেস্ট চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে তাদেরই মাটিতে। এ এক অসাধারণ অনুভূতি, অসামান্য