Home / খবর / পর্দার সঙ্গে বাস্তবের কোনো মিল নেই খল অভিনেত্রী রিনা খানের

পর্দার সঙ্গে বাস্তবের কোনো মিল নেই খল অভিনেত্রী রিনা খানের

রিনা খান। চলচ্চিত্রে খল চরিত্রে অ’ভিনয় করে দর্শক মহলে ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন। সুভাষ দত্তের ‘সোহাগ মিলন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আশির দশকের শুরুতে চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু করেন তিনি। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

দাপুটে এই অ’ভিনেত্রী এখন অবধি প্রায় ছয়শরও বেশি চলচ্চিত্রে অ’ভিনয় করেছেন। এখনও তিনি অ’ভিনয় করে চলেছেন। বর্তমান ব্যস্ততা কী’ নিয়ে? উত্তরে তিনি বলেন, এখন সাভা’রের ধাম’রাইয়ে মনতাজুর রহমান আকবরের ‘কাজের ছে’লে’ শিরোনামের একটি চলচ্চিত্রের শুটিং করছি। ১৫ দিন চলবে এর শুটিং।

এই চলচ্চিত্রের আগে আরও দুটি সিনেমায় কাজ করেছি। সামনে দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর পরিচালনায় একটিসহ আরও কয়েকটি সিনেমায় কাজের কথা আছে। একটা সময় চলচ্চিত্রে যে জৌলুস ছিলো, এখন তা নেই কেন? রিনা খান বলেন, চলচ্চিত্রের এই খা’রাপ অবস্থার অনেক কারণ আছে। আগে প্রচুর গল্পভিত্তিক ছবি হতো। এ কারণে অনেক শিল্পী তৈরি হতো। এখন সেইরকম গল্পই হচ্ছে না।

গল্পের পাশাপাশি হল, শিল্পী, নির্মাতাদের সংকট তৈরি হয়েছে। দর্শকদের আবার হলমুখী করতে হলে গল্পভিত্তিক ছবি বাড়াতে হবে। হলের পরিবেশ ভালো করতে হবে। নতুন করে এসব উদ্যোগ নিলে সুদিন ফিরলেও ফিরতে পারে।

আসলে সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা দরকার চলচ্চিত্রের দুরাবস্থা দূর করতে হলে। সিনেমায় নানা রকম ছল চাতুরী দিয়ে অন্যের সর্বনাশ করাই ছিল রিনা খানের কাজ। বাস্তব জীবনে তিনি কেমন? রিনা খান বলেন, নিজের স’ম্পর্কে বলা কঠিন। এতটুকু বলবো পর্দার সঙ্গে আমা’র বাস্তবের কোনো মিল নেই। ঠিক উল্টো আমি বাস্তবে।

আমা’র সহকর্মীদের জিজ্ঞেস করলে আরও ভালো ধারণা পাবেন আমা’র স’ম্পর্কে। শুটিংয়ের বাইরে সময় কী’ভাবে কাটে? এ অ’ভিনেত্রী বলেন, অবসরে ঘরের কাজ করি। ছে’লে, ভাই-বোনদের সঙ্গে সময় কে’টে যায়। অ’ভিনয় ক্যারিয়ারে কোনো অ’পূর্ণতা আছে কিনা জানতে চাইলে রিনা খান বলেন, সিনেমা থেকে অনেক কিছু পেয়েছি।

এখনও কোথাও গেলে আমাকে এক পলক দেখার জন্য হাজার হাজার মানুষ ছুটে আসে। মানুষের এতো ভালোবাসা পাওয়ার পর আর কোনো অ’পূর্ণতা থাকতে পারে না। অ’ভিনয় জীবনে এই মানুষটির সফলতার মূল মন্ত্র কী’? রিনা খান বলেন, কাজকে প্রাধান্য দিয়েছি। কোনো দিন অবহেলা করিনি। এজন্য হয়তো সৃষ্টিক’র্তা আমা’র দিকে মুখ তুলে চেয়েছেন। জনপ্রিয়তা দিয়েছেন।

Check Also

৩০ বছর ধরে পেপার বিক্রি, সেই টাকায় অসহায়দের সেবা

পরিবারের ইচ্ছায় কৈশর না পেরুতেই বিয়ে পিঁড়িতে বসতে হয় রাজশাহীর দিল আফরোজ খুকিকে। কিন্তু অকালেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *